৭টি সেরা ফ্রি পিডিএফ এডিটর

ফ্রি পিডিএফ এডিটর

পুরোপুরি ফ্রি পিডিএফ এডিটর খুঁজে বের করা মোটেও সহজ কোনো কাজ নয়। এই লেখায় এমন ৭টি ফ্রি পিডিএফ এডিটর নিয়ে কথা বলবো যা ব্যবহার করে একটি পিডিএফের সব কিছুই নিজের মত করে এডিট করতে পারবেন। তাহলে কথা না বাড়িয়ে শুরু করা যাক।

০১। Sejda PDF Editor

এটি আপনি আপানার ব্রাউজারে ব্যবহার করতে পারবেন। আপানার পিসি অথবা অন্য কোনো সাইট থেকে পিডিএফ আপলোড করে এডিট করতে পারবেন। এতে হাইপারলিংক এবং সিগনেচার টুল রয়েছে। যেকোনো পিডিএফ থেকে পেইজ ডিলিট করতে পারবেন। পিডিএফে ছবি এবং সেইপ যুক্ত করতে পারবেন।

তবে এই এডিটরে প্রতি ঘণ্টায় ৩টি পিডিএফ এডিট করা যাবে। আপনার পিডিএফটি ২০০ পেইজ এবং ৫০ এম্বির বেশি হওয়া যাবে না।

এছাড়া আপনি চাইলে তাদের ডেক্সটপ সফটওয়্যার ডাউনলোড করতে পারেন।

০২। Inkscape

এটি অনেক জনপ্রিয় ফ্রি ছবি দেখা এবং এডিটর হিসেবে। তবে এটি দিয়ে পিডিএফ এডিট করা যায়। এটি দিয়ে পিডিএফের ছবি এডিট করা যাবে।

০৩। PDFescape Online PDF Editor

এটি পুরো ফ্রি পিডিএফ এডিটর। তবে এটি দিয়ে ১০০ পেইজ অথবা ১০ এম্বির বেশি হলে এডিট করা যায় না। এটিতে আপনার ব্রাউজারে কাজ করতে পারবেন। এতে অনেক ধরণের টুলস রয়েছে। এতে আপনার নিজস্ব লেখা এবং ছবি যুক্ত করতে পারবেন।

০৪। PDF-XCHANGE Editor

এই এডিটরটিতে অনেক সেরা সেরা টুলস রয়েছে, তবে সব গুলো ফ্রিতে ব্যবহার করা যাবে না। এছাড়া ফ্রি ভার্সনের এডিটর ব্যবহার করলে প্রতি পেইজে ওয়াটার মার্ক থাকবে।

এই এডিটরে লেখা হাইলাইট করার জন্য ওসিআর রয়েছে। এতে বিভিন্ন সেইপ এবং ছবি যুক্ত করার সুযোগ রয়েছে। এছাড়া পিডিএফে কিউআর কোড যুক্ত করার ফিচার এতে রয়েছে। এটি শুধুমাত্র উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহারকারীরা ব্যবহার করতে পারবে।

০৫। Smallpdf Online PDF Editor

দ্রুত গতিতে পিডিএফে ছবি, লেখা, সেইপ অথবা আপনার সিগনেচার যুক্ত করার জন্য এটি সেরা। এটিতে পিডিএফ সাইটেই এডিট করতে পারবেন। এটি সম্পূর্ণ ফ্রি টুলস।

০৬। FormSwift’s Free PDF Editor

এটি খুবই সিম্পল একটি অনলাইন ফ্রি পিডিএফ এডিটর। এই এডিটরে কোনো ওয়াটার মার্ক থাকবে না। এতে লেখা, ছবি যুক্ত করার সুযোগ রয়েছে। এছাড়া লেখা হাইলাইট করার সুযোগ রয়েছে।

আরো পড়ুনঃ ফ্রিতে কপিরাইট ফ্রি ভিডিও ডাউনলোড করার সেরা ৭টি সাইট

০৭। PDF BOB

এটি একটি অনলাইন ফ্রি পিডিএফ এডিটর। এটিতে আপনার পিডিএফ আপলোড করে, প্রয়োজনীয় পরিবর্তন এবং আবার আপনার পিসিতে সেইভ করে নিন।

এটি ব্যবহার করা অনেক সহজ। বিভিন্ন ভাষা সমর্থন করে থাকে, পিডিএফ ফাইল ওয়াটার মার্ক ছাড়াই সেইভ করা যায়।

বিশেষ টিপস

যদি আপনি মাইক্রোসফট ওয়ার্ড ২০১৯, ২০১৬ অথবা ২০১৩ ব্যবহার করে থাকেন তাহলে উপরে উল্লেখিত পিডিএফ এডিটর ব্যবহার করার কোনো প্রয়োজন নেই। আপনি যেই পিডিএফটি এডিট করতে চান তা ওপেন করুন এবং নিজের মতো করে এডিট করে নিন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।